করোনা : সনাতন ধর্মাবলম্বীদের বারুণী স্নান মহোৎসব স্থগিত চকরিয়ায়

0

এবার হচ্ছে না সনাতন ধর্মাবলম্বীদের ঐতিহ্যের বারুণী স্নান মহোৎসব।

করোনাভাইরাস শংকায় কক্সবাজারের চকরিয়ায় স্থগিত করা হয়েছে সনাতন ধর্মীয় পুরো আয়োজন।

সব ধরনের ধর্মীয় আয়োজন বন্ধে চকরিয়া উপজেলা প্রশাসনের আদেশে পর বৃহস্পতিবার (১৯ মার্চ) রাতে সনাতন সম্প্রদায়ের ধর্মীয় সংগঠনগুলো যৌথ আলোচনায় এ সিদ্ধান্ত নেয়।

জানা যায়, ২৪-২৫ মার্চ পৌরসভার খোদারকুম পাড়াস্থ হিন্দুপাড়ায় ধর্মসভা ও অষ্টপ্রহরব্যাপী মহানামযজ্ঞ, ২৬-২৭ মার্চ ফাঁসিয়াখালী রুদ্রপাড়ায় ধর্মসভা ও মহোৎসব, ২৮-২৯ মার্চ দিগরপানখালীর কৃষ্ণ-অদ্বৈত চিন্তাহারী মন্দিরে ধর্মসভা ও অষ্টপ্রহরব্যপী মহানামজ্ঞ, ২১-২২ মার্চ ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের ঘুনিয়ায় মহাশ্মশানের ধর্মসভা, মহোৎসব ও একইদিন ডুলাহাজারা মহা বারুণী স্নান উপলক্ষে ধর্মসভা ও মহোৎসবের আয়োজন করে।

এসব অনুষ্ঠান করোনাভাইরাস রোধে এবং প্রশাসনের নির্দেশক্রমে স্থগিত করা হয়েছে।

ভাঙ্গারমুখ মহোৎসব উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক রনজিত দাশ বলেন, করোনাভাইরাসের কারণে আমাদের মহোৎসব স্থগিত করা হয়েছে। আমরা সমস্ত আয়োজন করে রেখেছিলাম। দেশের মানুষের কল্যাণের স্বার্থে এবং প্রশাসনের নির্দেশনা মোতাবেক আমরা আমাদের অনুষ্টান স্থগিত করেছি।

পরিস্থিতি যখন ভালো হবে তখন সিদ্ধান্ত নিবো।

উত্তর ঘুনিয়া কেন্দ্রীয় মহাশ্মশান শিব মন্দির মহোৎসব উদযাপন পরিষদের সভাপতি বাদল আচার্য্য বলেন, আমাদের পক্ষ থেকে সব ধরনের মহোৎসব উদযাপনের প্রস্তুি ছিলো। করোনাভাইরাসের কারণে এবং উপজেলা প্রশাসনের নির্দেশ মোতাবেক আমরা আমাদের অনুষ্টান স্থগিত করে দিয়েছি।

চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নূরুদ্দীন মুহাম্মদ শিবলী নোমান বলেন, করোনাভাইরাসের কারণে উপজেলায় সব ধরনের সভা-সমাবেশ, সকল ধর্মের সব ধরনের ধর্মীয় অনুষ্টান এবং বিয়ে বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

তাই এ বিষয়ে পরবর্তী সিদ্ধান্ত না দেয়া পর্যন্ত নির্দেশনাটি মেনে চলার অনুরোধ জানান তিনি।


এসএইচ

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন