s alam cement
আক্রান্ত
১০২৩১৪
সুস্থ
৮৬৮৫৬
মৃত্যু
১৩২৮

করোনা ঠেকানোর কাপড় তৈরি হচ্ছে চট্টগ্রামের সন্তানের প্রতিষ্ঠানে

নিতে আগ্রহী ইউরোপ-আমেরিকার বড় বড় ব্র্যান্ড

1

কাপড়ের নাম ‘করোনা ব্লক’। বিশেষ এই কাপড়ের সংস্পর্শে আসার ১২০ সেকেন্ড বা দুই মিনিটের মধ্যেই ৯৯ দশমিক ৯৯ শতাংশ করোনাভাইরাস ধ্বংস হবে। কাপড়ের কার্যকারিতা থাকবে ২০ থেকে ৩০ বার ধোয়া পর্যন্ত। কাপড়টি স্বাস্থ্যসম্মত এবং এতে কোনো ধরনের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াও নেই। ‘করোনা ব্লক’ নামের এই কাপড় দিয়ে মাস্ক ও পিপিইর মতো ব্যক্তিগত সুরক্ষাসামগ্রীর পাশাপাশি শার্ট, প্যান্ট, জ্যাকেটসহ সব ধরনের পোশাক তৈরি করা যায়।

করোনাভাইরাস প্রতিরোধী এমন কাপড় তৈরি করছে বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠান জাবের অ্যান্ড জোবায়ের ফেব্রিকস লিমিটেড। নোমান গ্রুপের প্রতিষ্ঠান এটি। এর প্রতিষ্ঠাতা নুরুল ইসলাম। তিনি চট্টগ্রামের লোহাগাড়ার আধুনগরের সন্তান। নোমান গ্রুপের প্রতিষ্ঠান জাবের অ্যান্ড জোবায়েরে তৈরি পণ্য যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, জাপান, অস্ট্রেলিয়া ও ইউরোপের বিভিন্ন দেশে রপ্তানি হয়।

ইতিমধ্যে এইচঅ্যান্ডএম, জারা, এমঅ্যান্ডএস, লাফ লরেনসহ শতাধিক ক্রেতাপ্রতিষ্ঠান ও ব্র্যান্ড ‘করোনা ব্লক’ নামের এই কাপড় নিয়ে ব্যাপক আগ্রহ দেখিয়েছে। সংযুক্ত আরব আমিরাতের (ইউএই) ইউনাইটেড গ্লোবাল হোল্ডিং নামের একটি ক্রেতাপ্রতিষ্ঠান এই বিশেষ কাপড় দিয়ে তৈরি ৫ লাখ পিস মাস্ক তৈরির ক্রয়াদেশ দিয়েছে, যা ঈদের আগেই সেখানে চলে যাবে।

সুইজারল্যান্ডের দুটি প্রতিষ্ঠানের সহযোগিতায় এই বিশেষ কাপড় নিজেদের টঙ্গীর কারখানায় উৎপাদন করছে জাবের অ্যান্ড জোবায়ের। ইতিমধ্যে বিদেশের পরীক্ষাগারে আইএসও ১৮১৮৪–এর অধীনে কাপড়ের পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। ইউরোপ ও যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে কাপড়টি রপ্তানি করার জন্য আন্তর্জাতিক মানসনদ প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকেও সনদ নিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। পরীক্ষাগারে প্রমাণ হয়েছে যে বিশেষ এই কাপড়ে মাত্র ১২০ সেকেন্ডে ৯৯ দশমিক ৯৯ শতাংশ করোনাভাইরাস ধ্বংস হয়। স্বয়ংক্রিয়ভাবে ভাইরাস ধ্বংস হওয়ার কারণে পোশাক না ধুলেও নিরাপদ থাকবে।

জানা গেছে, করোনা ব্লক কাপড় দিয়ে তৈরি পিপিই, মাস্কসহ অন্যান্য সুরক্ষা পোশাক স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে বিনা মুনাফায় দেশের হাসপাতালগুলোয় সরবরাহ করতে চায় জাবের অ্যান্ড জোবায়ের। সে জন্য আগামী সপ্তাহে মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করবেন প্রতিষ্ঠানটির কর্মকর্তারা। এ ছাড়া করোনা ব্লক কাপড় দিয়ে তৈরি বিভিন্ন ধরনের পোশাক এক থেকে দেড় মাসের মধ্যে অনলাইনে দেশের বাজারেও বিক্রি করা হবে।

সিপি

ManaratResponsive

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

1 মন্তব্য
  1. Momina বলেছেন

    হাহা, কত বাঘা-বাঘা হাতি ঘোড়া গেল তল, আর মশা বলে কত জল… ভাইরাস ঠেকাবে চইঙ্গা গার্মেণ্টসের হোমিওপ্যাথিক কাপড়? তাহলে তো সব ডাক্তার, বিজ্ঞানীদের নাকে তেল দিয়ে ঘুমোনোই শ্রেয়।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm