আক্রান্ত
১৮৬৯৫
সুস্থ
১৫০৬২
মৃত্যু
২৯০

করোনা আক্রান্তে ইতালিকেও ছাড়ালো বাংলাদেশ, মৃত্যু আরও ৩৯

0

যে সময় বাংলাদেশে প্রথম করোনাভাইরাসের অস্তিত্ব ধরা পড়ে (৮ মার্চ) সে সময় ইতালিতে করোনা পরিস্থিতি ছিল ভয়াবহ। পাঁচ মাসের মাথায় এসে শনাক্তের সংখ্যায় সেই ইতালিকেই ছাড়িয়ে গেল বাংলাদেশ। ওয়ার্ল্ডমিটারের তথ্য অনুযায়ী, ইতালিতে সংক্রমিত মোট রোগীর সংখ্যা এখন দুই লাখ ৪৮ হাজার ৮০৩ জন। আর বাংলাদেশে বৃহস্পতিবার (৬ আগস্ট) নতুন করে দুই হাজার ৯৭৭ জনসহ মোট আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে দুই লাখ ৪৯ হাজার ৬৫১ জন।

তবে জনস হপকিনস বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিসংখ্যান বিশ্লেষণে দেখা যায়, সংক্রমণে বাংলাদেশ ও ইতালির অবস্থান কাছাকাছি হলেও এই দুটি দেশের মধ্যে মৃত্যুসংখ্যায় পার্থক্য অনেক বেশি। ইতালিতে এখন পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে মোট ৩৫ হাজার ১৮১ জনের। সেখানে বাংলাদেশে সংখ্যাটি বৃহস্পতিারের৩৯ জনসহ মোট ৩ হাজার ৩০৬।

বৃহস্পতিবার (৬ আগস্ট) দুপুরে করোনাভাইরাস বিষয়ে স্বাস্থ্য অধিদফতরের দৈনন্দিন বুলেটিনে এ তথ্য জানান অধিদফতরের (নিপসম) পরিচালক অধ্যাপক ডা. বায়েজিদ খুরশীদ রিয়াজ।

বুলেটিনে জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় যে ৩৯ জন মারা গেছেন তাদের মধ্যে পুরুষ ৩২ জন ও নারী ৭ জন। করোনাভাইরাস শনাক্তে গত ২৪ ঘণ্টায় ১৩ হাজার ১৮৯টি নমুনা সংগ্রহ এবং ১২ হাজার ৭০৮টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। একই সময়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন আরও ২ হাজার ৯৭৭ জন। ফলে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ২ লাখ ৪৯ হাজার ৬৫১ জনে। এ নিয়ে মোট নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১২ লাখ ১২ হাজার ১২৪ জনে।

বুলেটিনে আরও জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন আরও ২ হাজার ৭৪ জন। এ নিয়ে মোট সুস্থ রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ১ লাখ ৪৩ হাজার ৮২৪ জনে।

অন্যদিকে, চট্টগ্রাম জেলায় করোনা শনাক্ত এখন ১৪ হাজার ৭৪৬ জন। এর মধ্যে মারা গেছেন ২৩৮ জন , যাদের ১৬৫ জন নগরের ও ৭৩ জন উপজেলার। অন্যদিকে, এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন দুই হাজার ৮৩৮ জন করোনা রোগী।

এমএহক

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ManaratResponsive

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন
ksrm