s alam cement
আক্রান্ত
৭৫৩৬৩
সুস্থ
৫৩৮৯৮
মৃত্যু
৮৮৫

করোনার ‘রক্তচক্ষু’, একদিনেই ৫ মৃত্যু—চট্টগ্রামে শনাক্ত বেড়ে ২৭৪

0

একদিনেই ৫ মৃত্যু, চট্টগ্রামে শনাক্ত বেড়ে ২৭৪ চট্টগ্রামে লাগামহীন ঘোড়ার মতো লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে করোনায় মৃত্যু ও শনাক্ত। গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এই সময়ে নতুনভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ২৭৪ জন। আক্রান্তদের মধ্যে নগরে ১৬০ জন এবং উপজেলায় ১১৪ জন।

এনিয়ে চট্টগ্রামে মোট আক্রান্তের সংখ্যা গিয়ে দাঁড়াল ৫৭ হাজার ১৫৪ জন। এদের মধ্যে মৃতের সংখ্যা ৬৭১ জন। যাদের ৪৬৬ জন নগরের এবং ২০৫ জন উপজেলার বাসিন্দা।

শুক্রবার (২৫ জুন) চট্টগ্রাম জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে প্রকাশিত প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা গেছে। প্রতিবেদন অনুযায়ী, চট্টগ্রামের সরকারি-বেসরকারি ১১টি ও কক্সবাজারের একটি ল্যাবে ৯৭৬ জনের নমুনা পরীক্ষা করানো হয়।

এর মধ্যে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাবে ১৩৬ জনের জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৭৮ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এদের মধ্যে ২৬ জন নগরের এবং ৫২ জন বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা।

বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজেসে (বিআইটিআইডি) ২৩৫ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এতে করোনা শনাক্ত হন ৩৬ জন। যাদের মধ্যে ২৫ জন নগরের। বাকি ১১ জন উপজেলার রোগী।

চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) ল্যাবে ১৩২ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৩১ জনের শরীরে করোনাভাইরাস পাওয়া গেছে। এদের মধ্যে ২০ জনই নগরের, বাকি ১১ জন উপজেলার।

Din Mohammed Convention Hall

চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি অ্যান্ড অ্যানিম্যাল সায়েন্সেস বিশ্ববিদ্যালয় (সিভাসু) ল্যাবে ১৮৫ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৫০ জনের করোনা পজিটিভ পাওয়া গেছে। যাদের মধ্যে ২০ জন নগরের এবং ৩০ জন বিভিন্ন উপজেলার।

চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের রিজিওনাল টিবি রেফারেল ল্যাবরেটরিতে (আরটিআরএল) ৩০ জনের নমুনা পরীক্ষা করে নগরের ৪ জন এবং উপজেলার ২ জনের শরীরে করোনার উপস্থিতি পাওয়া যায়।

এছাড়া, নগরীর বেসরকারি করোনার ল্যাবগুলোর মধ্যে ইম্পেরিয়াল হাসপাতাল ল্যাবে ৬৬ জনের জনের নমুনা পরীক্ষা করে নগরের ১৭ জনের দেহে ভাইরাসটির উপস্থিতি পাওয়া যায়।

শেভরণ ক্লিনিক্যাল ল্যাবরেটরিতে ৯০ জনের নমুনা পরীক্ষা নগরের ১৬ জন ও উপজেলার ২ জনের দেহে করোনার জীবাণু পাওয়া যায়।

চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতাল ল্যাবে ২৭ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১২ জন করোনা রোগী পাওয়া যায়। এদের ৮ জন নগরের এবং ৪ জন উপজেলার।

মেডিকেল সেন্টার হাসপাতাল ল্যাবে নগরের ১৬ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৭ জনের দেহে করোনার জীবাণু পাওয়া যায়।

ইপিক হেলথ কেয়ার ল্যাবে ৫৪ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১৮ জনের দেহে করোনার জীবাণু পাওয়া যায়। এদের মধ্যে ১৭ জনই নগরের, ১ জন উপজেলার।

এছাড়া, কক্সবাজার মেডিক্যাল কলেজ ল্যাবে চট্টগ্রামের ৪ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হলেও করোনা পজিটিভ রোগী পাওয়া যায়নি।

অন্যদিকে, পটিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ল্যাবে উপজেলার ১ জনের নমুনা পরীক্ষা করে সেটিতে করোনা পজিটিভ পাওয়া গেছে।

উপজেলায় করোনা আক্রান্তদের মধ্যে হাটহাজারীতে দিনের সর্বোচ্চ ২৯ জন করোনা পজিটিভ রোগী পাওয়া যায়। ফটিকছড়িতে এদিন ১৭ জন করোনা শনাক্ত হয়। এছাড়া আনোয়ারায় ১৫ জন, মিরসরাইয়ে ১৪ জন, সীতাকুন্ডে ১০ জন, রাউজানে ৮ জন, বোয়ালখালীতে ৭ জন, রাঙ্গুনিয়ায় ৪ জন, পটিয়া ও লোহাগাড়ায় ৩ জন করে, সন্দ্বীপে ২ জন এবং সাতকানিয়ায় ১ জন করোনা শনাক্ত হয়েছেন।

এমএহক

ManaratResponsive

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm