s alam cement
আক্রান্ত
৩২৫৭৮
সুস্থ
৩০৪৬৫
মৃত্যু
৩৬৭

করোনাতেই পুলিশের বিয়ে আখাউড়া থেকে উখিয়া এসে

1

করোনাভাইরাসে যখন চট্টগ্রাম-কক্সবাজারে আতঙ্কময় পরিস্থিতি, ঠিক সেই সময় পুলিশের এক কর্মকর্তা বিয়ের আয়োজন করলেন কক্সবাজারের উখিয়ায় এসে। রোববার (৭ জুন) বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা শেষ করে সোমবার রাতে নির্বিঘ্নে নতুন বৌ নিয়ে ফিরেছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ার ধর্মনগর গ্রামে। সেখানে আবার তাদের আশীর্বাদ দিতে গিয়েছেন কনের চাচা ডিবি পুলিশের ওসি।

পুলিশের এই এএসআইয়ের নাম আক্কাছ। তিনি কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়া থানার এএসআই হিসেবে কর্মরত। তবে তবে রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বাড়তি দায়িত্বের জন্য কিছুদিন ছিলেন কক্সবাজারের উখিয়ায়। রোববার (৭ জুন) তিনি কক্সবাজারের উখিয়ায় গিয়ে বিয়ের অনুষ্ঠানে যোগ দেন। তবে তার পরিবারের দাবি, আখাউড়া থেকে তারা কেউ বিয়েতে কেউ যাননি।

স্বাস্থ্যবিধি মেনে বিয়ে করেছেন জানিয়ে এএসআই আক্কাছ জানিয়েছেন, ‘বিয়ের বিষয়টি উখিয়া থানার ওসিকেও জানানো হয়েছিল। বউয়ের বাড়ির নিজস্ব গাড়িতে জীবাণুনাশক স্প্রে করে বাড়িতে এসেছি। পথে কোথাও নামিনি। এমনকি গাড়িতে খাওয়াও দিয়ে দেওয়া হয়।’

জানা গেছে, এএসআই আক্কাছ রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বাড়তি দায়িত্বের জন্য বেশ কিছুদিন কক্সবাজারের উখিয়ায় ছিলেন। উখিয়া ও রামু উপজেলার সীমান্তবর্তী স্থানে যে আবাসিক হোটেলে তিনি থাকতেন, ওই হোটেলের মালিকের ভাতিজিকেই তিনি বিয়ে করেছেন রোববার (৭ জুন)।

Din Mohammed Convention Hall

এএসআই আক্কাছের পারিবারিক সূত্র জানিয়েছে, আক্কাছের আগের স্ত্রী ক্যান্সার আক্রান্ত হয়ে মারা যান। তার ছোট ছোট দুটি সন্তান রয়েছে। এসব দিক বিবেচনা করে আক্কাছ বিয়ের সিদ্ধান্ত নেয়। পারিবারিকভাবে আলোচনা করে রোববার বিয়ে পড়ানো হয়। রোববার রাতে কনের চাচা ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) ওসি আমিনুর রশিদ আখাউড়ায় গিয়ে ভাতিজিকে দেখে গিয়েছেন।

সিপি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ManaratResponsive
1 মন্তব্য
  1. সোহেল বলেছেন

    ডিবির ওসি আমিনুর রশিদ কোন দেখা করেননি।ওনি ওনার কর্মস্থলে ছিলে।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন
ksrm