আক্রান্ত
৯৮৮৮
সুস্থ
১১৯৫
মৃত্যু
১৮৯

করোনামুক্ত হল মহিউদ্দিন চৌধুরী পরিবার, আনন্দের বন্যা ঘরে

0
high flow nasal cannula – mobile

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র প্রয়াত এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর স্ত্রীর হাসিনা মহিউদ্দিনের করোনা মুক্তির মাধ্যমে পুরো পরিবারই এখন করোনাভাইরাস থেকে মুক্ত হল। এর আগে ২৩ মে মহিউদ্দিনপুত্র বোরহানুল হাসান চৌধুরী সলেহীনসহ গৃহকর্মীদের সবার সর্বশেষ ফলোআপ রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছিল।

জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার (৪ জুন) ফৌজদারহাট বিআইটিআইডি ল্যাবে হাসিনা মহিউদ্দিনের নমুনা পরীক্ষায় ফলাফল নেগেটিভ এসেছে।

হাসিনা মহিউদ্দিনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছিল ১২ মে। তার আগে ১০ মে সালেহীনের করোনা শনাক্ত হওয়ায় ১১ মে চৌধুরী পরিবারের চট্টগ্রামের বাসা থেকে ৮ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছিল। তার মধ্যে হাসিনা মহিউদ্দিনসহ তিন জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছিল।

সালেহীনের সংস্পর্শে আসায় ১১ মে ঢাকার করোনা পরীক্ষার ল্যাব আইইডিসিআরে নমুনা পরীক্ষা করান মহিউদ্দিন চৌধুরীর বড় ছেলে ও শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল ও তার স্ত্রী, সন্তান, গাড়িচালক ও গানম্যান। সবার করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছিল। পাশাপাশি বোরহানুল হাসান চৌধুরী সলেহীনের স্ত্রী, নবজাতক সন্তান, শ্বশুর-শাশুড়িসহ পরিবারের ১২ সদস্যেরও নেগেটিভ এসেছে নমুনা পরীক্ষায়।

করোনা উদ্ভুত পরিস্থিতিতে এবারের ঈদ ঘরোয়া পরিবেশে কাটলেও চৌধুরী পরিবারের সবার মুরুব্বির করোনা পজিটিভ থাকায় ঘরে ছিল না ঈদের আনন্দ। বৃহস্পতিবার তার করোনামুক্তিতে চৌধুরী পরিবারে খুশির বন্যা বয়ে যাচ্ছে।

উৎফুল্ল সালেহীন চৌধুরী চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন, ‘আম্মুর করোনা মুক্তিতে আজ আমাদের কাছে ঈদের আনন্দের মতো। ঈদের আগে সবাই করোনা মুক্ত হলেও আম্মুর টেনশনে আমাদের সবার মন ছিল খুব খারাপ। আল্লাহর হাজার শোকরিয়া। আজ আম্মুও করোনামুক্ত হলেন।’

এফএম/সিপি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

Manarat

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন
ksrm