কক্সবাজারে স্ত্রী-মেয়ে হত্যা মামলায় জেলে গেলেন প্রধান আসামি শহিদুল

0

কক্সবাজারের ঈদগাঁও উপজেলায় মা ও দুই মেয়ে হত্যা মামলার প্রধান আসামি শহিদুল হককে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

রোববার (৮ মে) দুপুরে আদালতে জামিন আবেদন করলে কক্সবাজার জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

বাদিপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট মো. আমির হোসেন সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

শহিদুল হক ঈদগাঁওয়ে উপজেলার নতুন অফিস এলাকার মৃত আজিজুর রহমানের ছেলে।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, ২০২১ সালে ২২ ডিসেম্বর শহিদুল হক তার স্ত্রী জিসান আক্তারের কাছ থেকে দুই লাখ টাকা যৌতুক দাবি করে। টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে শহিদুল তার স্ত্রীকে হত্যা করে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলিয়ে রাখে। এ ঘটনা দুই কন্যা সন্তান দেখে ফেলায় তাদেরকেও হত্যা করে পালিয়ে যান শহীদুল। এরপর এই ঘটনাকে আত্মহত্যা হিসেবে চালিয়ে দেয়ার চেষ্টা চালান তিনি।

বাদি পক্ষের আইনজীবী মো. আমির হোসেন বলেন, ‘এই ঘটনায় নিহত জিসান আকতারে মা মোহছেনা আকতার বাদি হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেন। ঘটনার পর থেকে পলাতক ছিল প্রধান আসামি শহিদুল। গত ১১ এপ্রিল হাইকোর্টের বিচারক মোস্তফা জামান ইসলাম ও বিচারক মোহাম্মদ সেলিম এর বেঞ্জে জামিনের জন্য আবেদন করলে শহীদুল হককে চার সপ্তাহের জামিন মঞ্জুর করে নিম্ন আদালতে আত্মসমর্পণ করার আদেশ দেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘হাইকোর্টের আদেশ অনুযায়ী কক্সবাজার জজকোর্টে জামিনের আবেদন করলে আদালতের বিচারক শহীদুলের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন।’

ডিজে

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm