কক্সবাজারে পর্যটককে ছুরি মেরে ক্যামেরা ছিনতাই, গ্রেপ্তার ৪

কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে ঘুরতে যাওয়া এক পর্যটককে ছুরি মেরে ক্যামেরা ছিনতাইয়ের ঘটনায় চার ছিনতাইকারীকে গ্রেপ্তার করেছে ট্যুরিস্ট পুলিশ। এছাড়া ক্যামেরাটি উদ্ধার করা হয়েছে।

শুক্রবার (২৬ আগস্ট) গভীর রাতে পূর্ব কলাতলির চন্দ্রিমা মাঠ এলাকা থেকে তিন ছিনতাইকারীকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন কক্সবাজার সদরের ঝিলংজা মুহুরিপাড়ার মো. ছৈয়দ করিমের ছেলে মো. ইয়াছিন (২১), শহরতলীর লারপাড়ার আবদুশ শুক্করের ছেলে রুবেল (২০), রামু পানের ছরা মৌলভী পাড়ার মৃত আবুল কাশেমের ছেলে মো. ইব্রাহিম প্রকাশ সাগর (২০)।

এর আগে গত ২৩ আগস্ট ইফতেখার হোসেন নাবিল (২৩) নামের আরেক ছিনতাইকারীকে গ্রেপ্তার করে ট্যুরিস্ট পুলিশ। তিনি শহরের তারাবনিয়া ছড়া এলাকার আলী হোসেনের ছেলে। ছিনতাইয়ের ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় এখন তিনি কারাগারে।

শনিবার দুপুরে এসব তথ্য জানান ট্যুরিস্ট পুলিশ রিজিয়নের অতিরিক্ত সুপার রেজাউল করিম।

Yakub Group

ভুক্তভোগী পর্যটক সুমন বলেন, ‘বন্ধুদের সঙ্গে কক্সবাজারে এসে গত ২৩ আগস্ট ভোরে ঘুরতে বের হই। এ সময় সুগন্ধা পয়েন্টে হান্ডি রেস্টুরেন্টের সামনে সাতজন ছিনতাইকারীর কবলে পড়ি। ছিনতাইকারীরা আমাকে ছুরি মেরে ডিএসএলআর ক্যামেরা ছিনিয়ে নেয়। পরে ট্যুরিস্ট পুলিশ আমাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়।’

ট্যুরিস্ট পুলিশ রিজিয়নের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রেজাউল করিম জানান, ছিনতাইকারীরা ঘটনাস্থলে তাদের একটি মুঠোফোন ফেলে যায়। সে মুঠোফোনের সূত্র ধরে ইফতেখার হোসেন নাবিলকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী আরও তিন ছিনতাইকারীকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তার রুবেলের দেখানো জায়গা হতে ক্যামেরাটি উদ্ধার করা হয়।

ছিনতাইয়ে জড়িত অন্যদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত আছে বলে জানায় ট্যুরিস্ট পুলিশ।

ডিজে

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ksrm