এবার কক্সবাজারে ডানা মেলছে মুক্ত বিহঙ্গ, সাথে ৩৫ প্রবীণ-প্রতিবন্ধী

0

নিজেদের এলাকার গণ্ডি ছাড়িয়ে এবার বিশ্বের দীর্ঘতম সমুদ্রসৈকত কক্সবাজারে ডানা মেলছে মুক্ত বিহঙ্গ। একা নয়, সাথে ৩৫ প্রবীণ-প্রতিবন্ধী লোক, যারা সারাজীবন কক্সবাজারের নাম শুনে এসেছেন, নানা গল্প শুনেছেন, কিন্তু কখনো বেড়ানোর জন্য যেতে পারেননি। এবার তাদের বিনাখরচে যাওয়ার সুযোগ করে দিচ্ছে চট্টগ্রামের কর্ণফুলী উপজেলার চরপাথরঘাটা এলাকার সামাজিক সংগঠন ‘মুক্ত বিহঙ্গ’।

৩০ নভেম্বর সংগঠনটি ৩০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে নিয়েছে এমন ব্যতিক্রমধর্মী উদ্যোগ। এ যাত্রায় সাথী হতে পেরে অনেকের উচ্ছ্বাসই তাই বাঁধভাঙা।

৭০ বছরের বৃদ্ধ হায়দার আলী বলেন, ‘আঁইতো হনদিনও যাইত ন পারি হাঁস্যবাজার। টেলিভিশনত দেখকি দইজ্জের পানি। টেঁয়া-পয়সার অভাবে যাইত ন পারি, সাম্পান চালায় বউ-পোয়া লই সংসার চলায়। হনদিন যদি যাইবুর সুযোগ আইয়ি।’ (আমি তো কোনোদিনও যাইতে পারিনি দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকত কক্সবাজারে। টিভিতে দেখেছি, সাগরের ঢেউ। টাকা পয়সার অভাবে যাইতে পারিনি, সাম্পান চালিয়ে বউ, সন্তান নিয়ে সংসার চালাই। কোনোদিন যদি যাওয়ার সম্ভব হতো!)

৮৩ বছরের বৃদ্ধ আজিজুর রহমান জাপান ব্রিটিশের যুদ্ধের গল্পের কথা অনায়সে বললেও কক্সবাজার যেতে না পারাটা বড়ই আক্ষেপ করে বললেন, সারাটা জীবন কেটেছে সাগরে। কোনোদিনও যাইতে পারিনি কক্সবাজারে। চাইলে বোটে করেও যেতে পারতাম। সংসারের কথা চিন্তা করে আর যাওয়া হয়নি। শেষ বয়সে এসে বিনাখরচে যাচ্ছি, অনেক খুশি লাগছে।

৮৭ বছরের বৃদ্ধ জাফর আহমদ বলেন, ‘যেতে তো ইচ্ছে করে। টাকার অভাবে যেতে পারিনি।’

প্রতিবন্ধী নুরুল ইসলাম স্ট্রাকচারের ভর দিয়ে দাঁড়িয়ে বলেন, ‘পা নেই, মনের জোরে যেতে চায়। আর বেশি দিন বাঁচব না। খুবই ইচ্ছে করে জীবনের শেষ সময়ে এসে সকলের সাথে থাকতে।’

সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাতা মোহাম্মদ সেলিম হক জানান, ‘সকলে একে অপরের চেনা-জানা। সংগঠনের ৩০বছর পূর্তিতে যারা জীবনে কক্সবাজার যায়নি, শৈশবে দারিদ্রতা বা যোগাযোগ ব্যবস্থার কারণে পৃথিবীর দীর্ঘতম সমুুদ্র দেখার সুযোগটা হয়নি এমন বৃদ্ধ ও প্রতিবন্ধী ৩৫ জনকে নিয়ে চরপাথরঘাটা মুক্তবিহঙ্গ যাচ্ছে কক্সবাজার ভ্রমণে।’

তিনি আরও জানান, ‘শেষ বয়সের বৃদ্ধদের অযত্নে নয়, ভালোবাসার সুন্দর সমাজ গঠনে এ বার্তা ছড়িয়ে দিতে এই আয়োজন। এটাকে অনুসরণ করে জেগে উঠুক প্রতিটি সমাজ চিন্তার মানুষের বিবেক।’

মাত্র দুইটাকা করে চাঁদা দিয়ে ২০জন কিশোর সংগঠনটি কর্ণফুলী নদীর তীরে প্রতিষ্ঠা করেন। ৩০ বছর পথ চলা এতটা সহজ ছিল না। সংগ্রাম আর ঐতিহ্য নিয়ে এলাকার মানুষের হৃদয় জয় করেছে মুক্তবিহঙ্গ।

কেএস

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm