ইনজুরিতে বিশ্বকাপ বাছাই থেকে ছিটকে গেলেন রুমানা

0

চোটের কারণে মেয়েদের টি-টোয়েন্টি বাছাই থেকে ছিটকে গেলেন বাংলাদেশ নারী ওয়ানডে দলের অধিনায়ক রুমানা আহমেদ। তারকা এই অলরাউন্ডারকে ছাড়াই আগামী বৃহস্পতিবার ঢাকা ছাড়বে বাংলাদেশ দল।

কোচিংস্টাফ থেকে শুরু করে খেলোয়াড়দের সবাই আগে থেকেই জানতেন, বিশ্বকাপ বাছাই মিশনে তাদের সহযাত্রী হতে পারছেন না রুমানা। শুক্রবার মিরপুরের একাডেমি মাঠে অনুশীলনেও দেখা যায়নি এই লেগস্পিনিং অলরাউন্ডারকে। বিকেলে মিরপুরে সংবাদমাধ্যমকে খবরটি নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) মহিলা উইংয়ের ম্যানেজার নাজমুল আবেদীন। তিনি জানিয়েছেন, হাঁটুর চোট সারতে ‘বেশ সময় দরকার’ রুমানার, তাই বিশ্বকাপ বাছাইয়ে পাওয়া যাচ্ছে না বাংলাদেশ মহিলা দলের ওয়ানডে অধিনায়ককে। ৩১ আগস্ট শুরু হয়ে বিশ্বকাপ বাছাই চলবে ৭ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত।

দিন দুয়েক আগে অবশ্য আশার কথা শুনিয়েছিলেন রুমানা। তিনি জানিয়েছিলেন, সেরে ওঠার কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন, আর যেভাবে উন্নতি হচ্ছে, তাতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ বাছাইয়ে খেলার ব্যাপারে তিনি আশাবাদী। কিন্তু তা আর হচ্ছে না, শুক্রবার এসেছে তার ছিটকে যাওয়ার খবর।

রুমানাকে নিয়ে কোনও ঝুঁকি নিতে চায়নি বাংলাদেশ দল। সে কথাই ফুটে উঠেছে নাজমুল আবেদীনের কণ্ঠে, ‘যেভাবে ও (রুমানা) সেরে উঠছে, তাতে আমরা ওকে বিবেচনায় নিতে পারছি না। পুরোপুরি সেরে উঠতে বেশ সময় দরকার।’ রুমানার ছিটকে যাওয়াটা বড় ক্ষতি হিসেবে দেখছেন তিনি, ‘রুমানার মতো ক্রিকেটারকে না পাওয়াটা নিশ্চিতভাবেই অনেক বড় ক্ষতির। মিডল অর্ডারে আমার ওকে ভীষণ মিস করব।’

২০২০ সালে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের টিকিট পেতে ৮ দলের বাছাইয়ে অংশ নিতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। বাছাইয়ে গত বছরের চ্যাম্পিয়নরা তাদের প্রথম ম্যাচ খেলবে পাপুয়া নিউগিনির বিপক্ষে। ‘এ’ গ্রুপে তাদের অন্য দুই প্রতিপক্ষ স্কটল্যান্ড ও যুক্তরাষ্ট্র। এই টুর্নামেন্ট খেলতে আগামী ১৫ আগস্ট নেদারল্যান্ডসের উদ্দেশে দেশ ছাড়বে বাংলাদেশ। ৩১ আগস্ট বাছাইয়ের পর্দা ওঠার আগে ১০ দিন সেখানে ক্যাম্প করবে তারা। এরপর বাছাই পর্ব খেলতে স্কটল্যান্ডে বাংলাদেশ পা রাখবে ২৫ আগস্ট। ছয় দিন পর তাদের প্রথম ম্যাচ হবে পাপুয়া নিউগিনির সঙ্গে।

Loading...
আরও পড়ুন