s alam cement
আক্রান্ত
৫৬৮৮০
সুস্থ
৪৮৩৭৪
মৃত্যু
৬৬৬

আলুর দাম বাড়ছেই—বিক্রি হচ্ছে রশিদ ছাড়া, ম্যাজিস্ট্রেটের হাতে ধরা

অভিযানে দেড় লাখ টাকা জরিমানা

0

পাইকারি বাজারে কোনো রশীদ ছাড়াই বিক্রি হচ্ছে আলু। এভাবে ‘পেপারলেস’ আলু বিক্রির ঘটনা এবারই প্রথম বলে জানিয়েছে সংশ্লিষ্টরা। সরকার নির্ধারিত দামে আলু বিক্রি না করতেই এ কৌশলের আশ্রয় নিয়েছে ব্যবসায়ীরা।

৩০ টাকা দরে আলুর সর্বোচ্চ দর নির্ধারণ করে দিলে আড়তদারদের সিন্ডিকেট পাইকারি বাজারেই আলু বিক্রি করছে ৪০ থেকে ৪২ টাকা কেজিপ্রতি। চট্টগ্রামের বৃহত্তর কাঁচাবাজার রিয়াজউদ্দিন বাজারেই এই চিত্র দেখা গেছে।

এদিকে অতিরিক্ত দামে আলু বিক্রির অভিযোগ খতিয়ে দেখতে মাঠে নেমে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটও তার সত্যতা পান। অভিযান চালিয়ে ১০টি আলুর আড়তদারকে ১ লক্ষ ৪০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। মঙ্গলবার (২৭ অক্টোবর) সকালে শুরু হয় ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান।

নগরীর রিয়াজউদ্দিন বাজারে অভিযান পরিচালনাকারী চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ওমর ফারুক বলেন, ‘রসিদ ছাড়া আলু বিক্রি করছে পাইকারি ব্যবসায়ীরা। সরকারের বেধে দেওয়া আলুর দাম পাইকারী পর্যায়ে ৩০ টাকা বিক্রি করার কথা। কিন্তু রিয়াজউদ্দিন বাজারে এসে দেখা গেল ৪০ টাকা ও ৪২ টাকা বিক্রি করা হচ্ছে। তাই ১০টি প্রতিষ্ঠানকে ১ লাখ ৪০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।’

রিয়াজউদ্দিন বাজারের কুসুমপুর বাণিজ্যলয়ের সত্ত্বাধিকারী শওকত হোসেন বলেন, ‘সরকার নির্ধারিত মূল্যের মধ্যে সবাই বিক্রি করলে আমরাও বিক্রি করতে পারি। কিন্তু আমরা কমে বিক্রি করলে বেপারিরা আমাদেরকে আলু দেয় না। আমার দাবী হচ্ছে, সব আড়তে সরকারী আইন মানা হোক। না হয় আমাদের অনেক ক্ষতির সম্মুখীন হতে হবে। আমার প্রতিষ্ঠানকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত।’

রিয়াজউদ্দিন বাজারের আলুর আড়তদার কুমিল্লা বাণিজ্যলয়কে জরিমানা করা হয়েছে ২০ হাজার টাকা। এ প্রতিষ্ঠানের সত্ত্বাধিকারী আবদুল মান্নান খোকন বলেন, ‘আমরাও অসহায়। আমরা বেপারীদের থেকে এনে আলু বিক্রি করি। সামান্য কমিশনের মালিক আমরা। কিন্তু বর্ধিত দামে বিক্রি না করলে বেপারীরা আমাদের আলু দেন না। অপর দিকে সরকারের জরিমানাও আমাদের দিতে হচ্ছে।’

Din Mohammed Convention Hall

নগরীর রিয়াজউদ্দিন বাজারের আলুর আড়তে সকাল ৯টা থেকে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান শুরু হয়। চলে বেলা ১১টা পর্যন্ত। এ সময় ভ্রাম্যামান আদালতের সঙ্গে ছিলেন কৃষি বিপনন বিভাগের সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ বিল্লাল হোসেন।

এএস/এমএফও

ManaratResponsive

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm