আদালতকে ‘সুদানের পোলা’ ডেকে তোপের মুখে পুলিশের এসআই

২৪ ঘন্টার সময় বেধে দিয়ে শোকজ

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে আদালত নিয়ে ‘অশালীন’ মন্তব্যের অভিযোগে বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ির থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) মিঠুন সিংহকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়েছেন আদালত। তবে মিঠুন সিংহ বলছেন, তার ফেসবুক আইডি কয়েকদিন ধরে সমস্যা করছে। এ নিয়ে থানায় জিডিও করেছেন।

বুধবার (৩১ আগস্ট) বান্দরবানের আমলী আদালত-২ এর জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম এএসএম এমরান ২৪ ঘন্টার মধ্যে এসআইকে লিখিত ও মৌখিক ব্যাখ্যা দিতে এই কারণ দর্শানো নোটিস দেন।

কারণ দর্শানো নোটিসে আদালত বলেছেন, ‘এ সমাজে এবং পারিপার্শ্বিক পরিবেশে কী হচ্ছে কী ঘটছে সে সম্পর্কে আদালত বেখবর তা ভাবার কোন সুযোগ নেই। কোন একজন ব্যক্তি কোন এক বিজ্ঞ আদালতের কোন একটি সিদ্ধান্ত নিয়ে একটি পোস্ট দিয়েছেন। একজন ব্যক্তির মতামত থাকতেই পারে। তিনি সমালোচনা করেছেন, আলোচনা করেছেন। এটা এক প্রকার অধিকার। এই অধিকার কিছু সীমাবদ্ধতা সাপেক্ষে আইন ও সংবিধানে স্বীকৃত।’

ফেসবুক পোস্টের লিংক তুলে ধরে আদালতের দেওয়া নোটিসে ওই পুলিশ কর্মকর্তার পোস্টের বিষয়বস্তুও হুবহু উল্লেখ করা হয়। নোটিসে লেখা হয়— ‘একটি পোস্টে আপনি একজন পুলিশ কর্মকর্তা হয়ে অশ্রাব্য ভাষায় একটি কমেন্ট করেছেন, যা কোনভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়। যা নিম্নরূপ:
‘এই ধরনের একেকজন অপরাধীকে ধরতে সোর্স নিয়োগ করে, দিনরাত পরিশ্রম করে, জীবনের ঝুঁকি নিয়ে অভিযান পরিচালনা করে ধরে কোর্টে পাঠাই। আর সুদানের পোলারা পরের দিন জামিন দিয়ে দেয়। আর এই ধরনের প্রহসনমূলক বিচার তো আছেই।’

নোটিসে বলা হয়, ‘এই কমেন্ট কোনভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়। কাজেই যে আইডি থেকে কমেন্টটি করা হয়েছে তা যদি আপনার হয়ে থাকে তাহলে দায়দায়িত্ব অবশ্যই আপনার। আর যদি সেই কমেন্ট আপনি না করে থাকেন বা আইডিটি আপনার না হয়ে থাকে, তাহলে সেটাও আদালতের জানার প্রয়োজন আছে।’

Yakub Group

নোটিসে আদালত আরও বলেন, ‘সংশ্লিষ্ট পোস্টদাতা কোন এক বিজ্ঞ আদালতের একটি ফাইনাল সিদ্ধান্তের ব্যাপারে তার মতামত তুলে ধরেছেন। সে আলোচনায় অংশ নিতে গিয়ে আপনি বিজ্ঞ আদালতের জামিন এখতিয়ার নিম্নে অশ্রাব্য, অশোভন ও অভদ্র মন্তব্য করেছেন। আপনি এদেশের সমস্ত আদালত, বিশেষ করে বাংলাদেশের সমস্ত আমলী আদালতকে অভদ্রোচিতভাবে এবং ঔদ্ধত্যপূর্ণভাবে আক্রমণ করেছেন। কারণ জামিনের বিষয়ে মন্তব্য করতে গিয়ে আপনি আপনার কমেন্টে যে পর্যায়ে জামিনের কথা বলেছেন সেগুলো বেশিরভাগ ক্ষেত্রে বিজ্ঞ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত কর্তৃক পরিচালিত আমলী আদালতসমূহে হয়ে থাকে। কাজেই আপনি প্রাথমিকভাবে সেই আদালতসমূহ এবং সম্মানিত জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেগণকে সরাসরি আক্রমণ করেছেন। কাজেই সামগ্রিক বিবেচনায় আপনাকে আপনার কমেন্টের ব্যাপারে সশরীরে হাজির হয়ে আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে লিখিত ও মৌখিক ব্যাখ্যা দেওয়ার জন্য নির্দেশ প্রদান করা হলো।’

বান্দরবান জেলা ও দায়রা জজ আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ‍্যাডভোকেট ইকবাল করিম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। পিপি জানান, পুলিশের একজন এসআই বিজ্ঞ আদালত নিয়ে ফেসবুকে মন্তব্য করেছেন। আদালত আজকে (বুধবার) আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে অভিযুক্তের কাছ থেকে লিখিত ও মৌখিক ব্যাখ্যা চেয়েছেন।

এদিকে যার বিরুদ্ধে অভিযোগ, পুলিশের সেই এসআই মিঠুন সিংহ চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন, ‘আদালতের কারণ দর্শানোর বিষয়ে আমি অবগত নই। তবে আমার ফেসবুক আইডি কয়েকদিন ধরে সমস্যা করছে। আইডিটি ঠিকমতো ব্যবহার করতে পারছি না।’

তিনি বিষয়টি অবগত করে থানায় জিডিও করেছেন বলে জানান।

সিপি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ksrm