আইসিডিতে মাশুল বৃদ্ধি আমদানি-রপ্তানিতে খরচ বাড়বে শত কোটি টাকা

0

বেসরকারি কনটেইনার ডিপো পরিচালনাকারী প্রতিষ্ঠানগুলো ১ আগস্ট থেকে আমদানি-রপ্তানি পণ্যবাহী কনটেইনারের উপর চার্জ বা মাশুল একতরফাভাবে বৃদ্ধির যে ঘোষণা দিয়েছে তা বেসরকারি আইসিডি/সিএফএস নীতিমালা ২০১৬ এর ১১ ধারার ১১ দশমিক ১ উপধারার সুস্পষ্ট লঙ্ঘন বলে দাবি করেছেন চট্টগ্রাম চেম্বারের সভাপতি মাহবুবুল আলম।। একই সাথে এই ঘোষণা প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক ভিশন ২০২১ ও ২০৪১ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে ‘কস্ট অফ ডুয়িং বিজনেস’ কমানোর যুগান্তকারী পদক্ষেপের সম্পূর্ণ পরিপন্থী।

এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের অনুরোধ জানিয়ে মঙ্গলবার (৩০ জুলাই) নৌ-পরিবহন মন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরীকে একটি দাপ্তরিক পত্র দিয়েছেন মাহবুবুল আলম ।

একই পত্র মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. আবসুদ সামাদ, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার অ্যাডমিরাল জুলফিকার আজিজ এবং চট্টগ্রাম কাস্টম হাউজের কমিশনার এম ফখরুল আলম বরাবরও পাঠানো হয়েছে।

পত্রে মাহবুবুল আলম বলেন, ‘প্রাইভেট আইসিডিগুলোর (ইনল্যান্ড কনটেইনার ডিপো) আকস্মিক ও অযৌক্তিক মাশুল বৃদ্ধি কার্যকর হলে আমদানি-রপ্তানিতে বছরে শত কোটি টাকারও বেশি খরচ পড়বে। অফডক কর্তৃক চার্জ বৃদ্ধির ফলে দেশের সর্ববৃহৎ রপ্তানি খাত তৈরি পোশাক শিল্পের প্রতিযোগিতামূলক বাজারে সক্ষমতা হারানোর পাশাপাশি আইসিডি ব্যবহার করে খালাস করা হয় এমন আমদানিকৃত ৩৭ নিত্যপণ্যেও ব্যয় বৃদ্ধি পাবে যা সামগ্রিক অর্থনীতির উপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে।’

পত্রে জানানো হয়, বেসরকারি আইসিডি/সিএফএস এর বিভিন্ন ট্যারিফ যাচাই-বাচাই ও বিশ্লেষণপূর্বক নির্ধারণের লক্ষ্যে নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয় কর্তৃক গঠিত একটি কমিটির কাজ চলমান রয়েছে। কিন্তু প্রক্রিয়াধীন অবস্থায় বা কাজ চলাকালেই হঠাৎ মাশুল বাড়ানোর ঘোষণা জাতীয় অর্থনৈতিক স্বার্থে কোনভাবেই গ্রহণযোগ্য হতে পারে না।

পত্রে দেশের উন্নয়নমুখী রপ্তানিখাতের ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখা এবং নিত্য প্রয়োজনীয় আমদানিকৃত পণ্যের বাজার স্থিতিশীল রাখার স্বার্থে বিভিন্ন স্টক হোল্ডারদের সমন্বয়ে নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয় কর্তৃক গঠিত ট্যারিফ কমিটিতে চার্জ বৃদ্ধিকরণ সংক্রান্ত প্রস্তাব অনুমোদিত না হওয়া পর্যন্ত কোন ধরনের চার্জ বৃদ্ধি না করার লক্ষ্যে জরুরি ভিত্তিতে প্রাইভেট আইসিডি/অফডকগুলোকে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা প্রদানের জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ করেন মাহবুবুল আলম।

এ ব্যাপারে মাহবুবুল আলম চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন,‘কারো সাথে আলাপ-আলোচনা না করে প্রাইভেট আইসিডিগুলো কিভাবে চার্জ বৃদ্ধি করছে? এটা আমাদের প্রশ্ন। নীতিমালার আলোকে হলে ঠিক আছে। নীতিমালার বাইরে হলে ঠিক নয়। এই ঘোষণা কার্যকর হলে কস্ট অফ ডুয়িং বিজনেস বাড়বে। যা দিনশেষে ভোক্তাকে বহন করতে হবে। তাই এ ব্যাপারে পদক্ষেপ গ্রহণের অনুরোধ জানিয়ে আমরা নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ে চিঠি দিয়েছি।’

এমএ/এসএস

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন