আইআইইউসি দেখতে এসে মুগ্ধ উপমন্ত্রী শামীম

আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রাম ক্যাম্পাসে (আইআইইউসি) প্রবাহমান ঘোড়ামরা খালে সুপেয় পানির জলাধার নির্মাণ ও সৌন্দর্যবর্ধনে পানি সম্পদ মন্ত্রণালয় গৃহীত প্রকল্প পরিদর্শন করেছেন পানি সম্পদ উপমন্ত্রী এ কে এম এনামুল হক শামীম এমপি।

বুধবার (১৬ নভেম্বর) সকালে তিনি দুটি প্রকল্প পরিদর্শন করেন। পরে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রামের (আইআইইউসি) সেন্ট্রাল অডিটোরিয়ামে শিক্ষক-শিক্ষিকা ও শিক্ষার্থীদের সাথে এক আলোচনা সভায় যোগ দেন।

আইআইইউসি বোর্ড অব ট্রাস্টিজের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামুদ্দিন নদভী এমপি’র সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কে এম এনামুল হক শামীম এমপি বলেন, ‘আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রামে আমার আসতে দেরি হলেও আজ এসেছি। এত সুন্দর বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস আমি খুব কমই দেখেছি। বোর্ড অব ট্রাস্টিজে এর সভাপতি প্রফেসর ড. আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামুদ্দিন নদভী এমপির সাহেব আমার সুহৃদ। আমি তাকে প্রতিশ্রুতি দিতে চাই, আমি এই বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে প্রবাহিত ঘোড়ামরা খালে সুপেয় পানির জলাধার নির্মাণ ও সৌন্দর্যবর্ধনে পানি সম্পদ মন্ত্রণালয় গৃহীত প্রকল্পটি দ্রুততম সময়ের মধ্যে বাস্তবায়িত হয়ে যাবে ইনশাআল্লাহ।’

উপমন্ত্রী আরও বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরে বাংলাদেশে আজকে শিক্ষা ও প্রযুক্তির মান এমন একটি পর্যায়ে পৌঁছে গেছে যে, বাংলাদেশের শিক্ষার্থীরা আজ হার্ভার্ডের মত বিশ্ববিদ্যালয়ে লেখাপড়া করছে।’

আইআইইউসি’র নারী শিক্ষিকা ও শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘আজকের নারীরা কেবল প্রেরণা দেয় না, আজকের নারীরা দেয় নেতৃত্ব।’

বই উৎসবের বিষয়ে তিনি বলেন, ‘আমাদের সময় আমরা স্কুলে বছরের প্রথম ছয়মাস বড় ভাইবোনদের পুরোনো বই পড়তাম। এরপর হয়তো নতুন বই আসতো। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন বাস্তবায়নে ২০৪১ সাল পর্যন্ত যে পরিকল্পনা নিয়েছে তার মধ্যে শিক্ষাখাতকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। বর্তমান সরকার বছরের প্রথমদিনেই শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দেয়।’

Yakub Group

সভাপতির বক্তব্যে প্রফেসর ড. আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামুদ্দিন নদভী এমপি বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান যে স্বপ্নের বীজ বপণ করে গিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার বাস্তবায়ন করে যাচ্ছেন। এ সরকারের দায়িত্বশীল ব্যাক্তিরা যে কথা দেন, সেই কথা তারা রাখেন। তাই আমরা বিশ্বাস করি উপমন্ত্রী এ কে এম এনামুল হক শামীম এমপি আমাদের দেওয়া প্রতিশ্রুতির বাস্তবায়ন করবেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীশেখ হাসিনার কাছে একবার প্রশ্ন রাখা হয়, কেউ সকালে ঘুম থেকে ওঠে চা খুঁজেন কিংবা কেউ পত্রিকা খুঁজেন। আপনি সকালে ঘুম থেকে ওঠে কি খুঁজেন? উত্তরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, তিনি সকালে উঠে জায়নামাজ খুঁজেন। এর থেকে বোঝা যায় তিনি কতটা ধর্মপরায়ণ। অতএব প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে ধর্মীয় উস্কানিমূলক অপপ্রচারে কান দেবেন না।’

আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রামের ট্রেজারার ও ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির, আইআইইউসি বোর্ড অফ ট্রাস্টিজ এর ভাইস চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. দীন মোহাম্মদ, আইআইইউসির ফিন্যান্স কমিটির চেয়ারম্যান ও বিওটি সদস্য ড. ইঞ্জিনিয়ার রশিদ আহমদ চৌধুরী, আইআইইউসি ফিমেল একাডেমিক জোনের চেয়ারম্যান ও বিওটি সদস্য রিজিয়া রেজা চৌধুরী, আইআইইউসির ইন্টারনাল অডিট কমিটির চেয়ারম্যান ও বিওটি সদস্য প্রফেসর ড. মো. ফসিউল আলম, আইআইইউসির রেজিস্ট্রার এএফএম আক্তারুজ্জামান কায়সার, সীতাকুণ্ড উপজেলা চেয়ারম্যান এস এম আল মামুন, পোর্ট সিটি ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির বোর্ড অফ ট্রাস্টিজ এর সদস্য মাহফুজুল হায়দার চৌধুরী রোটন, পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের প্রধান প্রকৌশলী মো. রমজান আলী, সীতাকুণ্ড উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) আশরাফুল আলম, সীতাকুন্ড থানার পুলিশ পরিদর্শক (অপারেশন) আবদুর রহিম সরকার।

আলোচনা সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন আইআইইউসির ফ্যাকাল্টি ডীনবৃন্দ, ডিপার্টমেন্টের চেয়ারম্যানবৃন্দ, আইআইইউসির শিক্ষক-শিক্ষিকা ও কর্মকর্তাবৃন্দ।

আলোচনা সভা শেষে প্রধান অতিথি বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্ট্রাল লাইব্রেরি পরিদর্শন করেন। এর আগে সকালে আইআইইউসি ক্যাম্পাস পরিদর্শনকালে তিনি প্রশাসনিক ভবনের সামনে বৃক্ষরোপণ করেন।

ডিজে

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ksrm