আইআইইউসির ইংরেজি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগে ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠান

0

বিশ্ব সভ্যতার উত্থান কীভাবে হয়েছে— তা জানতে হলে ইংরেজি সাহিত্য পড়েই জানতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রামের (আইআইইউসি) ট্রাস্টি বোর্ডের সদস্য রিজিয়া রেজা চৌধুরী।

বুধবার (১ ডিসেম্বর) চট্টগ্রামের জিইসি মোড়ের একটি রেস্টুরেন্টে আইআইইউসির ইংরেজি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের মাস্টার্স ইন ইংলিশ ল্যাঙ্গুয়েজ এন্ড লিটারেচার এবং মাস্টার্স ইন ইংলিশ ল্যাঙ্গুয়েজ টিচিং প্রোগ্রামের ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

রিজিয়া রেজা চৌধুরী এ সময় বলেন, ‘সারা বিশ্বে আজ পর্যন্ত ইংরেজি সাহিত্যের শিক্ষার্থীদের কদর অনেক বেশি। কারণ যাদের ভেতরে সাহিত্যের জ্ঞান আছে তারা বিনয়ী হয়, তারা মননেও সমৃদ্ধ। তাদের ভাবনা, চিন্তা, আচরণ অন্যান্যদের চেয়ে আলাদা। বাংলাদেশেও ইংরেজিতে অনার্স ও মাস্টার্স শেষ করা শিক্ষার্থীদের প্রত্যেক স্তরেই বেশ সমীহ করা হয়ে থাকে। এই বিষয়ের শিক্ষার্থীদের চাকরির বাজারেও গুরুত্ব অনেক বেশি। যেসকল শিক্ষার্থীর শিল্প-সাহিত্যে ভীষণ আগ্রহ রয়েছে, যারা নতুনকে সহজভাবে গ্রহণ করতে পারেন তারাই এই বিশ্ববিদ্যালয়ে ইংরেজি সাহিত্য বিভাগে পড়তে আসে। আইআইইউসি ইংরেজি বিভাগে সাহিত্যতত্ত্ব পড়ানোর পাশাপাশি ইংরেজি ভাষা শেখানোর তত্ত্ব, নীতি এবং পদ্ধতির ওপরও জোর দেওয়া হয়।’

বাংলাদেশ মহিলা আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য রিজিয়া রেজা চৌধুরী আরও বলেন, ‘আইআইইউসি’র কেন্দ্রীয় লাইব্রেরি সাহিত্যের নানান গ্রন্থে সমৃদ্ধ। বিশ্বের নানান দেশের লেখকদের ইংরেজি ভাষায় লিখা বা অনুবাদ করা সাহিত্য এই লাইব্রেরিতে রয়েছে। বিভাগের সেমিনারেও রয়েছে এসব গ্রন্থ। বিশ্বখ্যাত কবিদের কবিতা, গল্প, নাটক, উপন্যাস জানার সুযোগ রয়েছে এই বিভাগের শিক্ষার্থীদের।’

ইংরেজি বিভাগের গুরুত্ব তুলে ধরতে গিয়ে তিনি আরও বলেন, ‘শত শত বছর ধরে ইংরেজি ভাষা তার গুরুত্ব বিশ্বব্যাপী ধরে রেখেছে। তাই ১৯২১ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় চালুর সময় হাতেগোনা যে ক’টি বিভাগ নিয়ে চালু হয়েছিল তাদের অন্যতম ইংরেজি বিভাগ।’

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আই আইইউসি’র উপাচার্য প্রফেসর আনোয়ারুল আজিম আরিফ, বিশেষ অতিথি ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের বোর্ড অব ট্রাস্টের সদস্য ও ফিন্যান্স কমিটির চেয়ারম্যান ড. ইঞ্জিনিয়ার রশিদ আহমেদ চৌধুরী, বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ উপাচার্য প্রফেসর ড. মছরুরুল মওলা, ট্রেজারার প্রফেসর ড. মুহাম্মদ হুমায়ুন কবির।

এছাড়া সম্মানিত অতিথি ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মুহাম্মদ শফিউর রহমান, বঙ্গবন্ধু রিসার্চ সেন্টার ফর ইসলাম এন্ড ইন্টাররিলিজিয়াস ডায়ালগের (বিআরসিআইআইডি) পরিচালক মো. ছরওয়ার আলম, ইনস্টিটিউট অব মডার্ন ল্যাঙ্গুয়েজের (আইএমএল) পরিচালক এবং ইংরেজি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মুহাম্মদ ইফতেখার উদ্দিন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ইংরেজি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের চেয়ারম্যান ড. শাহ মোহাম্মদ সানাউল করিম এবং অনুষ্ঠানটির কো-অর্ডিনেটর ছিলেন এই বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ইউসুফ উদ্দিন খালেদ চৌধুরী।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm