অ্যাপোলোর নাম ব্যবহার করতে পারবে না চট্টগ্রামের ইমপেরিয়াল হাসপাতাল

চট্টগ্রাম নগরীর ইমপেরিয়াল হাসপাতালকে ‘অ্যাপোলো’র নাম ব্যবহার না করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। হাসপাতালটির বিরুদ্ধে লাইসেন্সের শর্ত ভঙ্গেরও অভিযোগ আনা হয়েছে।

অ্যাপোলোর নাম ব্যবহার করতে পারবে না চট্টগ্রামের ইমপেরিয়াল হাসপাতাল 1

রোববার (৩ ডিসেম্বর) চট্টগ্রামের জেলা সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ ইলিয়াছ চৌধুরী স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে আগামী ১০ দিনের মধ্যে অ্যাপোলো-ইমপেরিয়াল হাসপাতাল নামযুক্ত সমস্ত সাইনবোর্ড, প্রচারপত্র ও অফিসিয়াল দস্তাবেজ অপসারণ করার জন্য সময় বেঁধে দেওয়া হয়। অন্যথায় বিধিমতো ব্যবস্থা গ্রহণের কথা বলা হয়।

নগরীর খুলশী জাকির হোসেন সড়কে প্রতিষ্ঠিত ‘ইমপেরিয়াল হাসপাতাল লিমিটেড’ নামে লাইসেন্স নিলেও গত এক বছর ধরে প্রতিষ্ঠানটি ‘অ্যাপোলো-ইমপেরিয়াল হসপিটাল’ নামে পরিচালিত হচ্ছে। বিষয়টি নজরে আসায় জেলা সিভিল সার্জন এই চিঠি দেন।

ইমপেরিয়াল হাসপাতাল লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালককে দেওয়া সিভিল সার্জনের চিঠিতে বলা হয়, ‘ইদানিং লক্ষ্য করা যাচ্ছে যে, ইমপেরিয়াল হাসপাতাল লিমিটেড এর কার্যক্রম অ্যাপোলো ইমপেরিয়াল নামে পরিচালিত হচ্ছে। প্রথমত ভিন্ন নামে কার্যক্রম পরিচালনা বিধিপরিপন্থি এবং বিভ্রান্তিকর। দ্বিতীয়ত- যেহেতু চিকিৎসা সেবা স্পর্শকাতর বিষয়। বিধিমতে নাম পরিবর্তন ব্যতিরেকে সকল বিলবোর্ড, বিজ্ঞাপন, অফিসিয়াল প্যাড, পত্র যোগাযোগ, সর্বক্ষেত্রে লাইসেন্স অনুযায়ী ইমপেরিয়াল হাসপাতাল নামে পরিচালনা একান্ত অপরিহার্য ও বিধিসম্মত।

চিঠিতে বলা হয়, ‘স্বাস্থ্য অধিদপ্তর কর্তৃক ইস্যুকৃত ইমপেরিয়াল হাসপাতাল লিমিটেড ব্যতীত অন্য কোনো নাম সংযোজন বিয়োজন করে স্থাপিত বিলবোর্ড, সাইনবোর্ড, বিজ্ঞাপন, অফিসিয়াল প্যাড, পত্র যোগাযোগ ইত্যাদি অনিয়মতান্ত্রিক কর্মকাণ্ড আগামী ১০ দিনের মধ্যে অপসারণ ও লাইসেন্স এর সাথে সংগতিবিহীন কর্মকাণ্ড বন্ধ করার জন্য নির্দেশ প্রদান করা হলো।’

চিঠিতে আরও উল্লেখ করা হয়, ‘বর্ণিতাবস্থায়; সেবা গ্রহিতাগণ প্রতারণা ও বিভ্রান্তির সম্মুখীন না হওয়া এবং জনস্বার্থে উপরোক্ত নির্দেশনা আবশ্যিকভাবে প্রতিপালনের জন্য নির্দেশনা প্রদান করা হলো। অন্যথায় বিধিমতে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!