অবৈধভাবে মজুদ ১৮ হাজার লিটার সয়াবিন তেল জব্দ চট্টগ্রামে

0

চট্টগ্রামের পাহাড়তলী বাজারে একটি দোকানে ‘গোপনে মজুদ করে রাখা’ ১৫ হাজার লিটার সয়াবিন তেলের সন্ধান পেয়েছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর।

সোমবার (৯ মে) দুপুরে নগরীর পাহাড়তলী বাজারে অভিযান চালিয়ে বিল্লি লেইনের সিরাজ সওদাগরের দোকানে ওই তেলের সন্ধান মেলে। গোপনে তেল মজুদ ও মেয়াদ উত্তীর্ণ পণ্য রাখার দায়ে ওই দোকানকে ১ লাখ ৭০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

এদিকে বাজারে সয়াবিন তেল উধাও। দেশের বাজারে তেলের দাম বিগত দিনের ইতিহাসকে ছাড়িয়ে গেছে। ভোক্তাদের অভিযোগ, ব্যবসায়ীরা তেল মজুদ করে রেখে কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করছে।

গত দুদিনে চট্টগ্রামের তিনটি স্থানে ১৮ হাজার লিটারের বেশি সয়াবিন তেল পাওয়া গেল, যা দাম বাড়ানোর জন্য অবৈধভাবে মজুদ করে রাখা হয়েছিল বলে অধিদপ্তরের ভাষ্য।

ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের চট্টগ্রামের বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো. আনিছুর রহমান চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন, ‘সিরাজ সওদাগরের দোকানে আমরা ১৫ হাজার লিটার সয়াবিন তেল পেয়েছি। এদের বিরুদ্ধে তেল মজুদ করে রাখার অভিযোগ ছিল। পাশাপাশি মেয়াদ উত্তীর্ণ পণ্য রাখার দায়ে তাদেরকে ১ লাখ ৭০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।’

Yakub Group

এর আগে রোববার (৮ মে) বিকালে নগরীর ষোলশহর দুই নম্বর গেইট এলাকার কর্ণফুলী মার্কেটের খাজা স্টোরের নিচে গুদামে রাখা বিভিন্ন ব্র্যান্ডের মোট ১ হাজার ৫০ লিটার সয়াবিন তেলের বোতলের সন্ধান পায় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর।

শনিবার রাতে চট্টগ্রামের ফটিকছড়ি উপজেলায় এক মুদি দোকানির বাড়িতে অভিযান চালিয়ে দুই হাজার ৩২৮ লিটার সয়াবিন তেল উদ্ধার করে স্থানীয় প্রশাসন।

আরএম/এমএহক

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ksrm