অপহরণের ১৩ দিন পর হাত বাঁধা যুবকের লাশ উদ্ধার

0

অপহরণের ১৩ দিন পর খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গা উপজেলার দুর্গম পাহাড়ি অঞ্চল হিলছড়ি এলাকা থেকে আলো প্রদীপ ত্রিপুরা (৩৭) নামে এ যুবকের হাত বাঁধা অবস্থায় লাশ উদ্ধার করেছে মাটিরাঙ্গা থানা পুলিশ। আলো প্রদীপ ত্রিপুরা হিলছড়ি এলাকার সতীশ কুমার ত্রিপুরার ছেলে।

হিলছড়ি কালা পাহাড় নামক স্থানে আলো প্রদীপ ত্রিপুরার লাশ রয়েছে এমন খবরে সোমবার (১৩ জানুয়ারি) বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে নিরাপত্তা বাহিনী ও মাটিরাঙ্গা থানা পুলিশ তৈকাতং ক্যাম্প হতে ৮ কি.মি. পূর্বে হিলছড়ি কালা পাহাড়ের পাদদেশ থেকে আলো প্রদীপ ত্রিপুরার লাশ উদ্ধার করে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গেল বছরের ৩০ ডিসেম্বর আলো প্রদীপ ত্রিপুরাকে অপহরণ করে তুলারাম ত্রিপুরাসহ কয়েকজন। অপহরণের পর থেকেই তাকে উদ্ধারে সেনাবাহিনী ও পুলিশ একাধিক অভিযান পরিচালনা করে।

এ ঘটনায় অপহৃতের ছোট ভাই খোকন ত্রিপুরা (২১) বাদী হয়ে সন্দেহভাজন ১১ জনের নামে মাটিরাঙ্গা থানায় মামলা দায়ের করেন।

পরে এলাকাবাসির সহযোগিতায় অপহরণের সাথে সম্পৃক্ত থাকার সন্দেহে গত ১ জানুয়ারি নারায়ন সেন ত্রিপুরা, মুজি কুমার ত্রিপুরা ও চাকতে কুমার ত্রিপুরা নামে তিনজনকে আটক করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাদের আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে মাটিরাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শামসুদ্দিন ভুইয়া বলেন, স্থানীয়দের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে দুর্গম পাহাড়ে দু-হাত পিছনে বাঁধা ও দেহের বেশীর ভাগ অংশ গর্তে পোতা অবস্থায় আলো প্রদীপ ত্রিপুরার লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

এ ঘটনায় পরবর্তীতে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে জানিয়ে তিনি বলেন, লাশ ময়না তদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

এসএইচ

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন